তারিখ : ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ

নওগাঁয় কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ১৫ এপ্রিল]
নওগাঁর ধামইরহাটে নবম শ্রেণি পড়ুয়া ক্ষুদ্র জাতিসত্তার এক কিশোরীকে (১৪) অপহরণের পর ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ছাত্রীর পরিবারই এই অভিযোগ তুলেছে। এ ঘটনায় পুলিশ সুজন হাঁসদা (২২) নামে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ জানায়, ওই কিশোরীর বাড়ি ধামইরহাট উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের কাজলগ্রামে। সে উপজেলার পূর্ব নন্দনপুর উচ্চবিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। গত রোববার বিদ্যালয়ের আয়োজনে বর্ষবরণের শোভাযাত্রায় অংশ নিতে সে বাড়ি থেকে বের হয়। বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠান শেষে ওই কিশোরী বান্ধবীদের সঙ্গে আত্রাই নদের ধারে উপজেলার শিমুলতলীতে সামাজিক বনায়ন এলাকায়  বেড়াতে যায়। বনায়ন এলাকায় একপর্যায়ে একা পেয়ে সুজন হাঁসদা নামের এক তরুণ কিশোরীটির পথ রোধ করে দাঁড়ান। এরপর তিনি নানা ভয়ভীতির মুখে কিশোরীটিকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় করে সাপাহার উপজেলার গোপালপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। পরে খবর পেয়ে ধামইরহাট থানা পুলিশ রোববার রাত আড়াইটার দিকে সুজন হাঁসদার বাড়ি থেকে কিশোরীটিকে উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ সুুজন হাঁসদাকে  গ্রেপ্তার  করে। ওই কিশোরীর বাবা মেয়ে উদ্ধারের পর আজ সোমবার ধামইরহাট থানায় মামলা করেন। মামলায় সুজনকে একমাত্র আসামি করা হয়েছে।

ধামইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। আজ সোমবার নওগাঁ সদর হাসপাতালে কিশোরীটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। গ্রেপ্তার সুজনকে আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৭৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই