তারিখ : ২৩ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুন ২০২০, সোমবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
৫ জন ২২৯ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৮২ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

এবার বিএসএমএমইউতে ভুয়া এন-৯৫ মাস্ক সরবরাহ

এবার বিএসএমএমইউতে ভুয়া এন-৯৫ মাস্ক সরবরাহ
[ভালুকা ডট কম : ২০ জুলাই]
দেশের শীর্ষ চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) এবার ধরা পড়েছে ভুয়া এন-৯৫ মাস্কের সরবরাহ।

শনিবার বিএসএমএমইউ চিকিৎসকদের দেওয়া এন-৯৫ মাস্কের লেবেলে হাস্যকর রকমের বানান ভুল দেখতে পেয়ে তারা জানিয়েছেন, এগুলো যে নকল তা খুব সহজেই বলে দেওয়া যায়। মাস্কের লেবেলে সতর্কবাণীতে সর্বমোট ২৩ শব্দ বিশিষ্ট দু’টি ইংরেজী বাক্যে অন্তত: চারটি ভুল বানান দেখে চিকিৎসকদের এমন সন্দেহ দেখা দিয়েছে।বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ মাস্ক প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান থ্রি-এম। তারা তাদের পণ্যের গায়ে এমন হাস্যকর ভুলসহ লেবেল ছাপাবে, তা একেবারেই সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

থ্রি-এমের তৈরি আসল এন-৯৫ মাস্কের সঙ্গে হাতে পাওয়া মাস্কের তুলনা করে একজন চিকিৎসক বলেন, এই মাস্ক খুবই নিম্নমানের। এটি তৈরির উপাদান ও গড়ন  অন্যরকম, যা মানসম্মত নয়।কোভিড-১৯ রোগীর চিকিত্সকদের এক সপ্তাহে ব্যবহার করার জন্য পাঁচটি এন-৯৫ মাস্ক দেওয়া হয়েছিল। চিকিৎসকরা বলেন, যে কয়েকটি মাস্ক আসল বলেই মনে হয়েছে, তবে বেশির ভাগই সুস্পষ্টভাবেই নকল।কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিতদের মাঝে এমন মাস্ক বিতরণের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকেই দায়ী করেছেন চিকিৎসকগণ। শনিবার হাসপাতালের পরিচালক ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগও জানিয়েছেন তারা।

তবে হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. জুলফিকার আহমেদ আমিন এসব পণ্য কোনো প্রতিষ্ঠান সরবরাহ করেছে তাদের নাম প্রকাশ করেননি। এমনকি এসব কিনতে কত টাকা খরচ হয়েছে বা কোন প্রক্রিয়ায় কেনা হয়েছে তাও জানাননি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. জুলফিকার আহমেদ আমিন গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা চিকিৎসকদের কাছ থেকে কিছু অভিযোগ পেয়েছি। সেসব অভিযোগের তদন্ত করছি। এখন আমরা অন্য জায়গা থেকে মাস্ক সংগ্রহ করছি। যারা মানের বিষয়ে অভিযোগ করেছেন তাদের বলা হয়েছে মাস্কগুলো ফিরিয়ে দিতে। তাদের নতুন মাস্ক দেওয়া হয়েছে।

এর আগে নকল মাস্ক ও পিপিই সরবরাহ নিয়ে গত এপ্রিলের শুরুর দিকে অনেক সরকারি হাসপাতালের চিকিত্সকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসকরা মাস্কের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন এবং তাদের কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তা প্রকাশ করেন।

নকল ও নিম্নমানের মাস্কের কারণে চিকিৎসক, তাদের পরিবার এবং রোগীদের মাঝে স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরাও।বাংলাদেশ ডক্টরস ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত অন্তত ৭১ জন চিকিৎসক কোভিড-১৯ সংক্রমণে মারা গেছেন। এ ছাড়া আরও ১১ জন কোভিড-১৯ এর উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে রাজধানীর শাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা এবং অভিযানের সময় সহযোগিতা না করায় হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ও ইনভেন্টরি অফিসারকে আটক করার পর র‍্যাব জানিয়েছে, এ মুহূর্তে হাসপাতালটিকে সিলগলা করা হবে না। তবে প্রতিষ্ঠানটির কাগজপত্র ঠিক করতে সময় দেওয়া হবে।

আজ (সোমবার) দুপুরে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান,হাসপাতালটিতে অভিযান চালানোর পর গতকাল রাতে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া দুজনকে আটক করা হয়েছে। আজ তাদের নামে মামলা করে গ্রেফতার দেখিয়ে থানায় হস্তান্তর করা হবে। এছাড়া হাসপাতালটিকে প্রথমবারের মতো সতর্ক করে সময় দেওয়া হবে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই